তারাগঞ্জে আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব

দিপক রায়, তারাগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি :

তারাগঞ্জে যদি আরো ভ‚মিহীন বা গৃহহীণ থাকে তাহলে তাদের তালিকা তৈরি করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানোর জন্য ইউএনওকে নির্দেশ দিচ্ছি। বাকী যারা আছে তারা যেন প্রত্যেকেই প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পায় সেই ব্যবস্থা করা হবে। আমরা আজকে এখানে বলে গেলাম বিআরডিবি, সমাজ সেবা, সমবায়, মহিলা ও শিশু বিষয়ক অধিদপ্তর, মৎস্য এদের মাধ্যমে এখানে প্রকল্প নেওয়া হচ্ছে। এখানে একটা দীঘি আছে, এই দীঘিতে মাছ চাষের ব্যবস্থা করে এখানকার সুবিধাভোগীদের জীবিকার ব্যবস্থা করা হবে।

এখানে উপকারভোগী যারা আছে, তাদের দক্ষতা অনুযায়ী তাদের চাহিদা মতো ঋণ সহায়তা দেওয়া হবে। বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টায় রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার ফরিদাবাদ আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করে কথাগুলো বলছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব তোফাজ্জল হোসেন মিয়া। সরকারি সফরে রংপুরে এসে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া উপহার আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন কালে উপজেলার সয়ার ইউনিয়নের ফরিদাবাদ আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করেন তিনি।

জানা যায়, সরকারি সফরের অংশ হিসেবে তারাগঞ্জ উপজেলার সয়ার ইউনিয়নে অবস্থিত ফরিদাবাদ আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব। এসময় তার সফর সঙ্গী হিসেবে সাথে ছিলেন মহাপরিচালক (প্রশাসন) আহসান কিবরিয়া সিদ্দিকি, সচিবের একান্ত সচিব কায়ছারুল ইসলাম, রংপুর বিভাগীয় কমিশনার আবদুল ওয়াহাব ভ‚ঞা, জেলা প্রশাসক আসিব আহসান, তারাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ¦ আতিয়ার রহমান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান লিটন, ইউএনও আমিনুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম ছাইদেল কাওনাইন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাবিনা ইয়াসমীন, সয়ার ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আল ইবাদত হোসেন পাইলট প্রমুখ। এসময় সচিব তোফাজ্জল হোসেন মিয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের বেশ কয়েক ঘর ঘুরে দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *