গাইবান্ধায় স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

গাইবান্ধা সদর উপজেলায় স্ত্রী রতনা বেগমকে (২৮) হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামী ফজলে রাব্বীর বিরুদ্ধে।

সোমবার (৮ নভেম্বর) দুপুরের দিকে উপজেলার খোলাহাটী ইউনিয়নের উত্তর খোলাহাটী গ্রাম থেকে রতনা বেগমের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, রোববার সকালে ফজলে রাব্বী তার নয় বছরের ছেলেকে মারধর করেন। এসময় স্ত্রী রতনা বেগম বাধা দিলে তাদের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে ফজলে রাব্বী রাতে তার স্ত্রীকে মারধর করেন। সোমবার সকালে ঘরের মধ্যে রতনার মরদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে।

নিহতের মা গোলেজা বেগম বলেন, ‘বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় রতনার ওপর নির্যাতন করে আসছিল ফজলে রাব্বী। এ নিয়ে গ্রাম্য শালিস বসলেও রাব্বী নির্যাতন থামায়নি।’

এটিকে হত্যাকাণ্ড দাবি করে তিনি বলেন, ‘আমার মেয়েকে রাতে হত্যা করে ঘরে মরদেহ রেখে দিয়েছে রাব্বী। হত্যাকারীর ফাঁসি চাই।’

গাইবান্ধা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মো. আব্দুর রউফ জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ওই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে আটক করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *