প্রেমের টানে বাংলাদেশে আসা কিশোরীকে ভারতে ফেরত

প্রেমের টানে আট মাস আগে অবৈধভাবে বাংলাদেশে আসা শাহানা ইয়াসমিন মিন (১৪) নামের এক কিশোরীকে ভারতে ফেরত পাঠিয়েছে পুলিশ।

বুধবার (৬ অক্টোবর) সন্ধ্যায় বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে তাকে ভারতের পেট্রাপোল চেকপোস্টে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ সময় মানবাধিকার সংস্থা জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ারের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। কিশোরী শাহানা ইয়াসমিন মিন ভারতের মালদহ জেলার চাতলা থানার হাজাতপুর গ্রামের মোজাম্মেল হকের মেয়ে।

মানবাধিকার সংস্থা জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ারের সিনিয়ার প্রোগামার অফিসার মুহিত হোসেন বলেন, কক্সবাজারের উখিয়ার আনসারী কামাল নামের একটি ছেলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে আট মাস আসে অবৈধ পথে পালিয়ে বাংলাদেশে আসে ওই কিশোরী। মেয়ে পালিয়ে আসায় কিশোরীর বাবা তাকে উদ্ধারে ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনারের কাছে আবেদন করেন।

বিষয়টি আমলে নেয় সিআইডি। পরে কিশোরীকে প্রেমিকের বাড়ি থেকে উদ্ধার করে কক্সবাজারের ‘লাইট হাউজ’ নামের একটি এনজিও সংস্থার শেল্টার হোমে রাখা হয়। সেখান থেকে আইনি প্রক্রিয়া শেষে সরকারের দেওয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিটে মেয়েকে বাবার হাতে হস্তান্তর করা হয়।

হস্তান্তরের সময় বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন খান, ইমিগ্রেশন পুলিশের ওসি রাজু আহম্মেদ, বিজিবির সুবেদার আরশাফ হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *