বাড়ি ফাঁকা পেয়ে শিশুকে ধর্ষণ

বাড়ি ফাঁকা পেয়ে শিশুকে ধর্ষণ

SHARE

নিউজ ডেস্ক:
বরিশালের উজিরপুর উপজেলায় ১৩ বছর বয়সী এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শিশুটিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত রাকিব গাজী (১৮) পলাতক রয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার গুঠিয়া ইউনিয়নের বান্না গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রাকিব গাজী গুঠিয়া ইউনিয়নের বান্না গ্রামের জাফর গাজীর ছেলে।
স্থানীয়রা জানান, রাকিব গাজী ও শিশুটির বাড়ি পাশাপাশি। মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে রাকিব গাজীর মা ও শিশুটির মা কিস্তি দিতে বাড়ি থেকে দূরে একটি এনজিওর কার্যালয়ে যান। এ সুযোগে শিশুটিকে কৌশলে নিজেদের ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে রাকিব।

এদিকে শিশুটির মা কিস্তি দিয়ে এসে কোথাও খুঁজে না পেয়ে রাকিবের বাড়িতে যান। সেখানে গিয়ে মেয়েকে অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পান। পরে তাকে বানারীপাড়ার চাখার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশুটির অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির নির্দেশ দেন।

এক পর্যায়ে শিশুটি ব্যথায় ও রক্তক্ষরণে অসুস্থ হয়ে পড়লে রাকিব পালিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পর রাকিবের মা ঘরে ফিরে শিশুটিকে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। তিনি শিশুটির জ্ঞান ফেরানোর চেষ্টা করছিলেন।

উজিরপুর থানা পুলিশের ওসি শিশির কুমার পাল জানান, বান্না গ্রামে একটি শিশুকে ধর্ষণের ঘটনা শুনে সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এছাড়া শিশুটির স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হচ্ছে। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে।

print