শুক্রবার   ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২   আশ্বিন ১৪ ১৪২৯   ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

হাতীবান্ধায় পলাতক জেএমবি সদস্যকে ৫ বছর পর গ্রেপ্তার

প্রকাশিত : ০২:১০ এএম, ২ জুলাই ২০২২ শনিবার

২০১৭ সালের ২১ আগস্ট রাতে লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা থানার টংভাংগা  এলাকায় অভিযান চালায় স্থানীয় ডিবি পুলিশ। ওই সময় জেএমবি এর কয়েকজন সক্রিয় সদস্য বৈঠকে বসেছিলেন। এই বৈঠকে মেহেদী ছিলেন। তারা সরকার ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং নাশকতামূলক কার্যক্রমের উদ্দেশ্যে বৈঠকে মিলিত হয়। ডিবির অভিযান পরিচালনার সময় পালিয়ে যান মেহেদী।

গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) অভিযানের সময় পালিয়ে যাওয়া জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) এক সদস্যকে ৫ বছর পর গ্রেপ্তার করেছে অ্যান্টি টেররিজম ইউনিট (এটিইউ)।

বৃহস্পতিবার(১ জুলাই) বিকেলে তাকে যশোর জেলার অভয়নগরের নওয়াপাড়া সুন্দলীবাজার এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার আসামির নাম মেহেদী হাসান। তার বাড়ি লামনিরহাটের হাতীবান্ধা থানার নিজ শেখ সুন্দর গ্রামের ১৪ বাড়ি। সে লতিফি তালুকদারের ছেলে।


এটিইউর পুলিশ সুপার (মিডিয়া অ্যান্ড অ্যাওয়ারনেস উইং) মোহাম্মদ আসলাম খান শুক্রবার দুপুরে সই করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

তিনি জানান, মেহেদী গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি। গ্রেপ্তারের সময় তার কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

এটিইউ জানায়, ২০১৭ সালের ২১ আগস্ট রাতে লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা থানার টংভাঙ্গা এলাকায় অভিযান চালায় স্থানীয় ডিবি পুলিশ। ওই সময় জেএমবির কয়েকজন সক্রিয় সদস্য বৈঠকে বসেছিলেন। এই বৈঠকে মেহেদী ছিলেন। তারা সরকার ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং নাশকতামূলক কার্যক্রমের উদ্দেশ্যে বৈঠকে মিলিত হয়। ডিবির অভিযান পরিচালনার সময় পালিয়ে যান মেহেদী।

এরপর ৫ বছর যশোরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আত্মগোপন ছিলেন মেহেদী। বগুড়া, যশোর ও লালমনিরহাটের বিভিন্ন স্থানে জঙ্গি তৎপরতা ও পরিকল্পনায় তার উপস্থিতি ও অংশগ্রহণের প্রমাণ পাওয়া গেছে। তার নামে আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।