ব্রেকিং:
ঘন কুয়া ও শৈত্য প্রবাহে লালমনিরহাটের জনজীবন স্থবির নেই ঢাকায় আসছে মেসির আর্জেন্টিনা

মঙ্গলবার   ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩   মাঘ ২৫ ১৪২৯   ১৬ রজব ১৪৪৪

সর্বশেষ:
পাটগ্রামে বীর মুক্তিযোদ্ধা হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত আসামী পলাতক সরকারি খরচে সাত বছরে হজে গেছেন ১৯১৮ জন বিশ্ব ইজতেমায় লাখো মুসল্লির জুমার নামাজ আদায় শীত আরও বাড়তে পারে বিয়েবাড়িতে চাঁদাবাজি: তৃতীয় লিঙ্গের চারজন কারাগারে
৯৬

হাতীবান্ধায় বসত ঘর ভাংচুর-অগ্নিসংযোগের অভিযোগ, আহত ২

প্রকাশিত: ২ ডিসেম্বর ২০২২  



হাতীবান্ধা (লালমনিরহাট) প্রতিনিধিঃ
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় জমি নিয়ে দ্ব›েদ্বর জেড়ে বসত ঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় বাধা দিতে গেলে দুই গৃহবধূকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে আব্দুল লতিফ(৫০) ও তার লোকজনের বিরুদ্ধে।
আহতদের অবস্থা অশংকাজনক হওয়ায় তাদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেছে হাতীবান্ধা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক।
শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে উপজেলার পশ্চিম নওদাবাস এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। এছাড়া এ ঘটনায় অভিযোগ দেয়ার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ভুক্তভোগী রফিক মিয়া।
বসত ঘর ভাংচুর-অগ্নিসংযোগ ও গৃহবধূকে মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত হলেন, উপজেলার একই এলাকার মৃত তোতা মন্ডলের ছেলে আব্দুল লতিফ। আহতরা হলেন, উপজেলার ওই এলাকার রফিকের স্ত্রী শিউলি বেগম(৩০) ও রফিকের বোন মেহেরুন(৪৫)।
জানা গেছে, অভিযুক্ত আব্দুল লতিফ ও রফিক মিয়াদের মাঝে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। সেই বিরোধের জেড়ে শুক্রবার বেলা ১২টায় আব্দুল লতিফ লোকজন নিয়ে রফিকের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করেন। এ সময় বাধা দিতে গেলে রফিকের স্ত্রী শিউলী বেগম ও বোন মেহেরুনকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরী বিভাগের দ্বায়িত্বরত চিকিৎসক তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন।
এ বিষয়ে ভুক্তভোগী রফিক মিয়া বলেন, আমার বাবার জমিতে আমি একটি নতুন বাড়ি করি। সেই জমিটি তারা নিজেদের দাবী করে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এমনকি আগুন লাগিয়ে দেয়। আমার স্ত্রী-বোন বাধা দিতে গেলে তাদের মারধর করে। এমনকি সেখানে লাগানো সুপারির গাছ গুলো তুলে নিয়ে যায়। আমি থানায় লিখিত অভিযোগ দিবো।
এ বিষয়ে রফিকের বোন মেহেরুন বেগম বলেন, ওই জমি আমার বাবার। তারা অতর্কিত ভাবে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। বাধা দিতে গেলে আমাকে ও আমার ভাইয়ের স্ত্রী বেধড়ক মারধর করে। আমি এখন উঠে দাড়াতে পারছি না। আমি ওদের বিচার চাই।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত আব্দুল লতিফ বলেন, ওই জমি আমাদের। আমার রফিকের বাবার কাছ থেকে কিনে নেই। তবে আমরা তাদের কোন মারধর করিনি। তারা মিথ্যা কথা বলতেছে।
এ বিষয়ে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের দ্বায়িত্বরত চিকিৎসক মেডিকেল অফিসার ডা. তৌফিকা শারমিন বলেন, আহত ওই দুই গৃহবধূকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে।
এ বিষয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হাতীবান্ধা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মঈনুল ইসলাম বলেন, আমি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। আহত ওই দুই নারীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া তাদেরকে থানায় লিখিত অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। অভিযোগ দিলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই বিভাগের আরো খবর