ব্রেকিং:
বাংলাদেশকে ২৮৫৪ কোটি টাকা ঋণ দিলো বিশ্বব্যাংক তেলের সংকট নেই, বলছেন পাম্প মালিকরা

সোমবার   ০৮ আগস্ট ২০২২   শ্রাবণ ২৩ ১৪২৯   ০৯ মুহররম ১৪৪৪

সর্বশেষ:
বাংলাদেশকে ২৮৫৪ কোটি টাকা ঋণ দিলো বিশ্বব্যাংক ট্রেনের উপর প্রভাব,যাত্রীদের উপচেপড়া ভীর রংপুরে বাস সংকটে যাত্রী বেড়েছে ট্রেনে অসহনীয় কাঁচা মরিচ, খুচরায় কেজি ২৪০ তুরস্কে মূল্যস্ফীতি ২৪ বছরে সর্বোচ্চ, লিরার পতন অব্যাহত
৭৪৮

হাতীবান্ধায় মুরগির খাঁচায় বিষধর সাপের দংশনে নারীর মৃত্যু

প্রকাশিত: ১৯ মে ২০২২  

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় বিষধর সাপের দংশনে আমেনা খাতুন (৫৫) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৯ মে)  ভোররাতে উপজেলার ফকিরপাড়া ইউনিয়নের দালাল পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

গৃহবধূ আমেনা খাতুন দালালপাড়া গ্রামের আব্দুল আজিজের স্ত্রী।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১১ দিকে ঘরের পাশে রাখা  মুরগির খটখট শব্দ শুনে রাতেই আমেনা খাতুন মুরগির ঘরে প্রবেশ করে। মুরগির খাঁচায় বাম হাত প্রবেশ করা মাত্রই বিষধর সাপ দংশন করে। এ সময় তার স্বামী আব্দুল আজিজ হাতের উপরে বেঁধে রাখেন। 

 

 পরে হাতীবান্ধা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। হাতীবান্ধা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার তাসকিনুর রহমান প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে হাতের দুটি বাঁধন খুলে দেয়। এর কিছুক্ষণ পর রোগীর অবস্থা বেগতিক দেখে চিকিৎসক  রংপুর মেডিকেল হাসপাতালে রোগিকে রেফার্ড করেন। পরিবারের লোকজন ওই বিষধর সাপটিকে  আটক করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। 

 

দালালপাড়া গ্রামের সাইদুর রহমান (৫০) জানান,সাপে দংশন করা ওই নারীকে হাত বাঁধা অবস্থায় হাতীবান্ধা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাই কিন্তু সেখানকার চিকিৎসক হাতের বাঁধন খুলে দেওয়ার ৫ মিনিট পর রোগীর অবস্থা বেগতিক দেখে তিনি রংপুর মেডিকেলে কলেজে রেফার করেন। এর কিছুক্ষণ পরেই হাসপাতালে রোগীর মৃত্যু হয়। 

 

হাতীবান্ধা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার তাসকিনুর রহমান জানান,সাপে দংশন করা ওই নারীকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে আমরা প্রাথমিক চিকিৎসা করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করি।

 

 

ফকিরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলার রহমান খোকন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি ইউপির এক সদস্যের মাধ্যমে জেনেছি। নিহতের পরিবারের বাড়ির দিকে রওনা করেছি। 

 

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা থানার উপ-পরিদর্শক এসআই আজিজার রহমান বলেন,বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের সাথে কথা হয়েছে। লাশ পারিবারিকভাবে দাফন সম্পন্ন হবে। 

এই বিভাগের আরো খবর