ব্রেকিং:
২০ ডিসেম্বর থেকে দেওয়া হবে করোনা টিকার চতুর্থ ডোজ আড়াই বছর পর চালু হলো কুড়িগ্রামের বর্ডার হাট

বুধবার   ০৭ ডিসেম্বর ২০২২   অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৯   ১৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
কুড়িগ্রামে পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু আজ ৬ ডিসেম্বর লালমনিরহাট হানাদার মুক্ত দিবস গোলরক্ষকের বীরত্বে জাপানকে টাইব্রেকারে হারিয়ে কোয়ার্টারে ক্রোয়েশি ব্রাজিলের শেষ আটে ওঠার লড়াইয়ে আজ সামনে দক্ষিণ কোরিয়া কেউ আমার লাশ পাইলে ফোন দিয়েন
১০২

রংপুর সিটিতে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন পেল হোসনে আরা লুৎফা

প্রকাশিত: ২৩ নভেম্বর ২০২২  

 রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে সাবেক এমপি এডভোকেট হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়াকে। আওয়ামী লীগের এই সিদ্ধান্তে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনের পাশা পাল্টে যাবে বলে মনে করছেন রাজনীতিবিদগণ।

 

বুধবার (২৩ নভেম্বর) আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ-এর সভাপতি শেখ হাসিনা এমপি'র নির্দেশক্রমে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আসন্ন রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে অ্যাডভোকেট হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া-কে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেন।

 

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ও জেলা পরিষদ নির্বাচনে রংপুর আওয়ামী লীগের নেতাদের বিদ্রোহী প্রার্থীকে জিতিয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে অনেক আগে থেকেই। এ কারণেই কিছুদিন আগে রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের এক জ্যৈষ্ঠ নেতাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।  

 

রংপুর সিটি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে প্রচারণা চালিয়েছেন রংপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়ার রহমান সাফি ও রংপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল। এ প্রচারণায় অংশ নেননি অ্যাডভোকেট হোসনে আরা  লুৎফা ডালিয়া।

 

তবে আওয়ামী লীগের এই সিদ্ধান্তকে যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত হিসেবে মনে করছেন রংপুরের রাজনীতিবীদগন। এর ফলে রংপুরে আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দল হ্রাস ও বিদ্রোহী প্রার্থী তৈরির সম্ভাবনা অনেকখানি কমবে। এছাড়াও এই সিদ্ধান্তে জাতীয় পার্টির দুর্গে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর নতুন সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচন হতে পারে বলে মনে করছেন তারা।

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান শরিফুল ইসলাম বলেন, আওয়ামী লীগ একটি সুসংগঠিত দল ও নারী নেতৃত্বে উৎসাহী করছে। এখানে কোন প্রার্থী ফ্যাক্টর নয়, ফ্যাক্টর হলো আওয়ামী লীগ। আওয়ামীলীগ যাকে মনোনয়ন করেছে তাকেই দলটির সমর্থনকারীরা ভোট দেবে। মনোনয়ন অনেকেই চাইতে পারেন, কিন্তু একজনকেই মনোনয়ন দেয়া হবে। আর হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া আগে এমপি ছিলেন, তিনি একটি পরিচিত মুখ। দলের লোকেরা একসাথে কাজ করলে বিজয়ী হতে পারে।

এবারের রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের শুরু থেকে মাঠ কাঁপিয়ে বেড়াচ্ছিলেন জাতীয় পার্টির নেতা ও সাবেক মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা। তবে দলীয় কোন্দলে রওশন এরশাদের পক্ষ থেকে রংপুর পৌরসভার সাবেক মেয়র আব্দুর রউফ মানিককে মনোনীত করা হয়। ফলে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন জটিলতায় আওয়ামী লীগের রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া কে মনোনয়ন প্রদান একটি বিস্ফোরণ মনে করছেন রংপুরের জনগণ।

এ নিয়ে হারাগাছ মেট্রোপলিটন থানার আ.লীগ সভাপতি রেজাউল ইসলাম বলেন, আমার নেত্রী একজন চৌকস মানুষ। তার সিদ্ধান্ত কখনও ভুল হবেনা। অ্যাডভোকেট হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া একজন ত্যাগী নেত্রী। জাতীয় পার্টির দুর্গে রংপুর সিটি নির্বাচন এবার জমবে।

 

এনিয়ে সিটি নির্বাচনে প্রচারণায় এগিয়ে থাকা প্রার্থী তুষার কান্তি মন্ডলের সাথে কথা বলা হলে তিনি বলেন, 'নেত্রী যাকে মনোনয়ন করেছেন তাকেই আমরা সাপোর্ট করবো। আসন্ন নির্বাচনে একসাথে কাজ করে রংপুর সিটি কর্পোরেশনে আ.লীগের নেতার জয় হবে এটাই আমাদের লক্ষ্য।

এই বিভাগের আরো খবর