বুধবার   ১৮ মে ২০২২   জ্যৈষ্ঠ ৪ ১৪২৯   ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
জিআই সনদ পেলো বাগদা চিংড়ি পঞ্চগড়ে ট্রেনের টয়লেটে মিললো বীর মুক্তিযোদ্ধার মরদেহ রংপুরে ভারি, অন্যান্য স্থানে হালকা বৃষ্টি হতে পারে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট থেকে আয় ৩০০ কোটি ছাড়িয়েছে: বিএসসিএল উন্নয়ন প্রকল্পের সমালোচকদের একহাত নিলেন প্রধানমন্ত্রী
২৮১

আজ তিন বিঘা করিডোর আসছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ

লালমনিরহাট প্রতিনিধি:

প্রকাশিত: ৬ মে ২০২২  

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার তিনবিঘা করিডর পরিদর্শন করবেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

শুক্রবার (০৬মে) সকাল ১১টায় তিনবিঘা করিডোর পরিদর্শনের করবেন এর পর ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী(বিএসএফ)সাথে এক মতবিনিময় সভায় যোগদেবেন তিনি।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ তিন বিঘা করিডোর পরিদর্শনে আসাতে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) এবং বর্ডার গার্ড ব বাংলাদেশ (বিজিবি) করিডোর এলাকায় কড়া নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। এর আগে ২০১৫ সালে ৩১মার্চ ভারত-বাংলাদেশ ছিটমহল বিনিময়ের আগে তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং তিনবিঘায় এসেছিলেন ৷ ছিটমহল বিনিময়ের পর এই প্রথম তিনবিঘায় আসছেন দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৷ বর্তমানে বিএসএফের জলপাইগুড়ি সেক্টরের অন্তর্গত ৬নং ব্যাটেলিয়ন তিনবিঘা করিডোরের নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে ৷

২০১১ সালের ১৯ অক্টোবর বাংলাদেশের নাগরিকদের ভারতের তিনবিঘা করিডর দিয়ে ২৪ ঘন্টা যাতায়াতের সূচনা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের তৎকালীন স্বাস্থ্যমন্ত্রী গুলাম নবি আজাদ । জানা গেছে, পাটগ্রাম উপজেলার দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা বাসিন্দাদের জন্য ১৯৯২ সালে ২৬ জুন ইজারার মাধ্যমে উক্ত তিন বিঘা বাংলাদেশকে প্রদান করা হয়। তবে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ১ ঘন্টা পর পর করিডোর দিয়ে বাংলাদেশীদের যাতায়াতের সুযোগ দেয়া হয়।

অতঃপর করিডোর দিন- রাত খোলা রাখার জন্য দাবী উত্থাপিত হলে ২০০১ সালে ২৭ এপ্রিল থেকে তা সকাল ৬ঃ৩০ মিনিট হতে সন্ধ্যা ৬ঃ৩০ পর্যন্ত খোলা রাখার ব্যবস্থা করা হয়। সর্বশেষ গত ২০১১ সালে ৬ সেপ্টেম্বর ঢাকাতে অনুষ্ঠিত হাসিনা-মনমোহন বৈঠকে স্বাক্ষরিত চুক্তি মোতাবেক বাংলাদেশীদের যাতায়াতের জন্য তিনবিঘা করিডোর বর্তমানে ২৪ ঘন্টা খোলা রাখা হচ্ছে।

৫১ বিজিবি পানবাড়ি কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার খাইরুল ইসলাম বলেন,ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ তিনবিঘা পরিদর্শন করবেন। ৫১ বিজিবির পক্ষ থেকে তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হবে। তিনি আরও বলেন,ভারত-বাংলাদেশ মিলে বিজিবি ও বিএসএফ সীমান্ত এলাকা জুড়ে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর